Fun FactsInformative

E অক্ষর বর্জিত এক উপন্যাস

মনে করুন, আপনাকে একটা উপন্যাস লিখতে বলা হলো প্রায় ৫০,০০০ শব্দের মধ্যে। সঙ্গে একটি শর্ত দেওয়া হলো, ‘অ’ বা ‘ই’ এর মতো যে কোনো একটি অক্ষর একটিবারের জন্যও আপনি ব্যবহার করতে পারবেন না উপন্যাসে। চমকে গেলেন তো? ভিত্তিহীন মনে হলো তাই না? আপনার, আমার কাছে এমনটাই হওয়া স্বাভাবিক।

(১)‘Gadsby’ হলো ১৯৩৯ সালে প্রকাশিত একটি ইংরেজী উপন্যাস, যার রচয়িতা হলেন Ernest Vincent Wright; প্রায় পঞ্চাশ হাজার শব্দে সজ্জিত উপন্যাসটির বিশেষত্ব হলো— উপন্যাসটিতে একটিবারের জন্যও ইংরেজীর ‘E’ বর্ণটি ব্যবহার করা হয়নি। এ’বিষয়ে যিনি স্রষ্টা অর্থাৎ আর্নেস্ট ভিনসেন্ট রাইট জানিয়েছিলেন- তাঁর প্রাথমিক অসুবিধা ছিলো অতীতকালের ক্রিয়াপদ অর্থাৎ ভার্বে ‘-ed’ সাফিক্স কীভাবে এড়িয়ে যাওয়া যায়। ফলস্বরূপ দেখা যায় তিনি ‘walked’ এর মতো শব্দকে ব্যবহার করেছেন ‘did walk’ রূপে। তাঁর এই উপন্যাসটি লেখা হয়েছিলো ‘লিপোগ্রাম’ ফর্ম্যাটে। লিপোগ্রাম হলো লেখালেখির সেই ধরনের ফর্ম্যাট, যেখানে একটি অক্ষর বা একটি সংখ্যাকে পুরোপুরিভাবে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়। ভিনসেন্ট রাইট কিছু প্রবাদপ্রতিম বাক্যকে লিপোগ্রামেটিক ফর্ম্যাটে সাজিয়েছিলেন। যেমন- John Keats এর একটি উক্তি ছিল, “A thing of beauty is a joy forever.” আর্নেস্ট রাইট এখানে ‘e’ কে পুরোপুরিভাবে বাদ দিয়ে সাজালেন এভাবে- “A charming thing is a joy always.”

উপন্যাসটি গড়ে উঠেছে John Gadsby এবং তার শহর Branton Hills কে কেন্দ্র করে। যেখানে তিনি তার নিশ্চল শহরকে ব্যস্তবাগীশ এবং সচল শহরে পরিণত করেন। পরবর্তীকালে নিজের শহরের ‘মেয়র’ পদ লাভ করেন তিনি।

সম্পূর্ণরূপে ‘E’ – বর্জিত উপন্যাসটির সূচনার বাক্য ছিলো নিম্নরূপ —

If Youth, throughout all history, had had a champion to stand up for it; to show a doubting world that a child can think; and, possibly, do it practically; you wouldn’t constantly run across folks today who claim that “a child don’t know anything.”

images

(২) ‘A Void’ হলো আর একটি উপন্যাস যা পুরোপুরি ‘E’ বর্জিত। উপন্যাসটি রচনা করেছিলেন Georges Perec; যা ছিলো ফ্রেঞ্চ ভাষাতে এবং মূল গ্রন্থটির ফ্রেঞ্চ ভাষাতে নাম ছিলো ‘La Disparition‘, যা প্রকাশিত হয় ১৯৬৯ সালে ‘A Void’ হলো উপন্যাসটির ইংরেজী নাম, যা অনুবাদ করেছিলেন Gilbert Adair নামে একজন লেখক। এই অনুবাদটির জন্য তিনি ‘Scott Moncrieff’ পুরষ্কার লাভ করেন ১৯৯৫ সালে। পরবর্তীকালে উপন্যাসটি ইটালিয়ান, সুইডিশ, রোমানিয়ান, জাপানিজ সহ আরও অনেক ভাষায় অনুবাদ করা হয়েছিলো। তবে প্রত্যেকটি ভাষাতেই ‘লিপোগ্রামেটিক’ ফর্ম্যাট অনুসরণ করা হয়েছিলো।

 

আর্টিকেল টি ভালো লাগলে অবশ্যই কমেন্ট করবেন। ❤️

 

Avijit Sikdar

Avijit Sikdar is a student of Mathematics at Raiganj University; who has keen interest in Cricket, Quiz, Poems and Articles.
9 Comments
Oldest
Newest Most Voted
Inline Feedbacks
View all comments
Shilpa Guria
Shilpa Guria
9 months ago

Akta notun jinis sikhlam ei article theke thank you for this article❤️

Shrabani Roy
Shrabani Roy
9 months ago

Carry on dada ❤
Aro anek tothyo janar opekhhay

Kabita Mondal
Kabita Mondal
9 months ago

Bahh khub sundor toh… 🍁❤

Lipika sen hazra
Lipika sen hazra
9 months ago

Sotti anek kichu jante parlam… 😊

Tripti Manna
Tripti Manna
9 months ago

Evabe aro onek valo kichu likhe jeo

Adblocker Detected

Please turn off the adblocker to view the page. This will help us to maintain our website.