InformativeTechnology

Crypto Currency -র এভাবে দাম কমার কারণ কি? Cryptocurrency কি এখনো কেনা উচিত ?

2020 থেকে বরাবর ই Crypto Currency -র রমরমা ভারতে বেড়ে চলেছে। সেজন্যই সারা বিশ্বের Crypto Investor দের মধ্যে ১৫ মিলিয়ন ভারতের অধিবাসী

Cryptocurrency -র দাম কমছে কেন ?

ব্যাপার টা খুব সাধারণ। বাজারে কোনো কিছুর দাম বাড়বে জানলে যেমন সেই জিনিস কেনার জন্য সাধারণ মানুষের মধ্যে হুড়োহুড়ি লেগে যায় , তেমন ই Crypto market এ কোনো Coin এর দাম বাড়তে পারে জানার সাথে সাথে সবাই সেটা কেনার জন্য ব্যস্ত হয়ে পরে।

একইভাবে ,যেমন কোনো কিছু বাজারে চলছে না জানার পর বিক্রেতা তা অনেক কম দামে বিক্রি করার জন্য উঠে পরে লাগেন লোকসান হওয়ার ভয় এ, সেভাবেই মার্কেট ক্র্যাশ করার পর Crypto Investor -রা তাদের Asset বিক্রি করতে শুরু করেন , তও যথাসম্ভব কম দামে। ক্রিপ্টো মার্কেট চলছে শুধুমাত্র ক্রেতা বিক্রেতা দের কার্যকলাপ এর ওপর। কেনা বেচা কমতে শুরু করলে  দামও কমতে শুরু করে সেই হিসেবেই।

ইতিমধ্যে ভারত সরকারের দ্বারা পেশ করা নতুন ক্রিপ্টো রেগুলেশন বিল আসার পর Crypto Market এ সব Crypto Coin এর Price কমতে শুরু করেছে। অনেকেই নিজের ইনভেস্ট করা টাকার সবটাই হারিয়েছেন

বাজারে কোনো সংবাদ এলে ( বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ভুয়ো ) Crypto মার্কেট এ Spike দেখা দেয় অর্থাৎ দাম বাড়তে শুরু করে।

নতুন ক্রিপ্টো রেগুলেশন বিল কি বলছে ?

ভারত সরকারের দ্বারা পেশ করা নতুন Crypto Regulation Bill নিয়ে অনেকের মধ্যে অনেক মতবিরোধ রয়েছে। এখনো সঠিকভাবে এর ব্যাখ্যা পাওয়া সম্ভব হয়নি।

cryptoprice
তবে কিছু কিছু বড়ো Investor দের মতানুযায়ী ভারত সরকার শুধুই এর খারাপ ব্যবহার আটকাতে চাইছে
ডার্ক ওয়েব এ ( ডার্ক ওয়েব বিষয়ে আর্টিকেল পড়তে এবং আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা জানতে নিচে কমেন্ট করুন , অবশ্যই খুব তাড়াতাড়ি আর্টিকেল লেখা হবে ) , ড্রাগস্ ও নেশা সামগ্রী, বেআইনি হাতিয়ার কেনাবেচা, কোনো কাজে হ্যাকার দের নিযুক্ত করা ইত্যাদি কাজে ক্রিপ্টো কারেন্সী (বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বিটকয়েন ) এর ব্যবহার প্রচুর। কারণ Crypto Currency – র প্রেরক (sender) ও প্রাপক (receiver) এর ডিটেলস পাওয়া সম্ভব নয়।

এই সমস্ত অসামাজিক কাজে ক্রিপ্টো ব্যবহার বন্ধ করতেই ভারত সরকার এই বিল পাশ করেছে বলে বেশিরভাগ মনে করছেন;
খুব সম্ভবত ভারত সরকার ক্রিপ্টো ইনভেস্ট এর ওপর ট্যাক্স বসানোর কথা ভাবছে, যাতে Investor দের সংখ্যা কমতে পারে এবং কেনাবেচা সম্পর্কে সরকার কিছুটা অবগত থাকতে পারে।

এখন কি তবে Cryptocurrency কেনা উচিত নয় ? কিনলে কি কেনা উচিত ?

যদি আপনার Cryptocurrency এর ওপর বিশ্বাস থাকে, তবে এমন একটা এমাউন্ট খরচ করতে পারেন যাতে ব্যান হয়ে গেলেও আপনার অনেক বেশি টাকা খোওয়া গেছে বলে মনে না হয়।

cryptocurrency

এখন Invest করতে চাইলে আপনি বড়ো Coin যেমন বিটকয়েন , এথেরিয়াম , এইসব এ ইনভেস্ট করতে পারেন। AltCoin আপনাকে যেমন বড়োলোক করে দিতে পারে, তেমন ই এক দিনে আপনি আপনার সব টাকা খুইয়ে ফেলতে পারেন।Elon Musk এর টুইট এর পর DOGE Coin এর দাম যে হারে বেড়েছিল, সেইসময় Doge কিনে যারা এখনো HODL (Hold On for Dear Life, সাধারণত ক্রিপ্টো হোল্ড করাকে এইভাবে বলা হয় )  করছেন , তাদের অনেকের অ্যাসেট শূন্যের কাছাকাছি এসে দাঁড়িয়েছে।

এছাড়া আপনার যদি কোনো প্রশ্ন থাকে , নিচে কমেন্ট এ জানাতে পারেন।

আরো পড়ুন : ১৮ বছর হলেই পাবেন ক্রেডিট কার্ড , বাড়বে ক্রেডিট স্কোর

Prantosh Biswas

Prantosh is a student of Mathematics and a Freelance Website and Mobile Application (Android & iOS) Developer.

Related Articles

Adblocker Detected

Please turn off the adblocker to view the page. This will help us to maintain our website.